জার্মানির বনে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৩) প্যারিস চুক্তির তহবিল সংগ্রহের লক্ষে প্রত্যেককে বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলোকে জরুরি ভিত্তিতে অর্থ সহায়তা দিতে বলেছে জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচির (ইউএনইপি) অর্থ বিষয়ক প্রধান এরিক উশের।

">
Pran All Time

‘জলবায়ু স্থিতিশীল রাখতে প্রচুর অর্থের প্রয়োজন’

কপ সম্মেলনে বক্তারা

UNB NEWS

মঙ্গলবার ১৪ নভেম্বর, ২০১৭ ০৪:৩৫:১১ পিএম

‘জলবায়ু স্থিতিশীল রাখতে প্রচুর অর্থের প্রয়োজন’

ঢাকা, ১৪ নভেম্বর (ইউএনবি)- জার্মানির বনে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৩) প্যারিস চুক্তির তহবিল সংগ্রহের লক্ষে প্রত্যেককে বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলোকে জরুরি ভিত্তিতে অর্থ সহায়তা দিতে বলেছে জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচির (ইউএনইপি) অর্থ বিষয়ক প্রধান এরিক উশের।

তিনি বলেন, ‘জলবায়ু অর্থায়নে আমাদের প্রতি বছর কমপক্ষে ১.৫ ট্রিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা প্রয়োজন। সরকারি, বেসরকারি, জাতীয়, আন্তর্জাতিকসহ সকল নিয়ন্ত্রকদের আর্থিক সহযোগিতা জরুরি হয়ে পড়েছে।

প্যারিস চুক্তিতে বিশ্বের গড় তাপমাত্রা ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে, সম্ভব হলে ১.৫ সেলসিয়াসের কাছাকাছি রাখার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। জলবায়ু দিবসের জন্য অর্থায়নবিষয়ক আলোচনায় কপ-২৩ সম্মেলনে বিভিন্ন দেশের উচ্চপদস্থ প্রতিনিধিরা এই লক্ষ্য বাস্তবায়নে তাদের প্রচেষ্টা তুলে ধরেন।

তারা জোর দিয়ে বলেন, জাতিসংঘের সংবাদ কেন্দ্র অনুযায়ী, গ্রিনহাউজ গ্যাস নির্গমনের জন্য প্রত্যেক ডলার বিনিয়োগ করা হয়। এই বিনিয়োগ জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়। এটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়নকেও এটি সরাসরি সমর্থন করে।

জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন দফতর অনুযায়ী, জলবায়ুর জন্য অর্থায়ন আগের চেয়ে অনেক দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পেয়েছে। নবায়ণযোগ্য জ্বালানি, বৈদ্যুতিক যানবাহন, সবুজ ভবন এবং জলবায়ু কৃষিতে ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে। সেই সাথে, জলবায়ুর পরিবর্তন ঠেকাতে অর্থায়ন বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বনমুক্ত ও জলবায়ু স্থিতিশীলতার জন্য আরও অর্থায়ন ও বিনিয়োগের প্রয়োজন।

বিশ্বব্যাংকের টেকসই উন্নয়নের উপ-রাষ্ট্রপতি লরা টাক বলেন, ‘জলবায়ুর জন্য প্রচুর বিনিয়োগ করার ক্ষেত্র রয়েছে। কার্বন কমানো ও জলবায়ু স্থিতিশীল রাখার জন্য প্রত্যেককে বিনিয়োগ করা প্রয়োজন

জলবায়ু পরিবর্তনের ওপর ইন্সটিটিউশনাল ইনভেসটর গ্রুপের প্রধান ও ড্যানিশ পেনশন প্রভাইডার পিকেএ-এর সিইও পিটার ড্যামগার্ড জেনসেন সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘নীতি নির্ধারকদের থেকে বিনিয়োগ জরুরি।