লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার নন্দনপুর কাদেরিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক ইমাম হোসেনের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে।

">
Pran All Time

মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের মামলা

UNB NEWS

রবিবার ২৯ অক্টোবর, ২০১৭ ০২:২০:৩৩ পিএম

মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের মামলা

লক্ষ্মীপুর, ২৯ অক্টোবর, (ইউএনবি)- লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার নন্দনপুর কাদেরিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক ইমাম হোসেনের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে।

রোববার সকালে মাদ্রাসার এক ছাত্রী ওই শিক্ষককে আসামি করে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযুক্ত শিক্ষক নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার খানপুর গ্রামের আবদুল খালেকের ছেলে।

দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. আতিকুর রহমান বলেন, শিক্ষক ইমামের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের ধর্ষণচেষ্টা ও যৌন নিপীড়নের লিখিত অভিযোগ পেয়ে দু’বার তাকে শোকজ করা হয়েছে। জবাবে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এ বিষয়ে শনিবার দুপুরে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির একটি সভা হয়। এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থী ও স্থানীয় লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন। খবর পেয়ে পুলিশ মাদ্রাসা থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক ইমাম হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পুলিশ, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানায়, দুই বছর আগে ইমাম হোসেন নন্দনপুর কাদেরিয়া দাখিল মাদ্রাসায় কৃষি শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকেই মাদ্রাসার পাশের এক বাড়িতে শিক্ষার্থীদের প্রাইভেট পড়াতেন তিনি। খাতায় বেশি নম্বরসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দেয়ার কথা বলে ওই বাড়িতে ছাত্রীদের নানান ধরনের যৌন নিপীড়ন করে আসছিল ওই শিক্ষক।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. লোকমান হোসেন জানান, শিক্ষক ইমাম হোসেনের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে রয়েছে। ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে এক ছাত্রী থানায় মামলা দায়ের করেছে। অভিযুক্ত  শিক্ষকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত চলছে।