অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের জন্য মানুষ ও অর্থনীতির সেতুবন্ধন প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার থেকে ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলায় শুরু হয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) পরিচালনা পর্ষদের চার দিনব্যাপী ৫১তম বার্ষিক সভা।

">
Pran All Time

এডিবির সভা শুরু : মূল নজর অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নে

UNB NEWS

বৃহস্পতিবার ০৩ মে, ২০১৮ ১০:২১:২১ এএম

এডিবির সভা শুরু : মূল নজর অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নে

ম্যানিলা, ০৩ মে (ইউএনবি)- অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের জন্য মানুষ ও অর্থনীতির সেতুবন্ধন প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার থেকে ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলায় শুরু হয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) পরিচালনা পর্ষদের চার দিনব্যাপী ৫১তম বার্ষিক সভা।

সভায় বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে দিচ্ছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব জী শফিকুল আযম, ইআরডির আরো দুজন অতিরিক্ত সচিব (এডিবি উইং) ও এডিবির বিকল্প নির্বাহী পরিচালক মাহবুব আহমেদ অর্থমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন।

সম্মেলন ছাড়াও এডিবির প্রেসিডেন্ট তাকেহিকো নাকাওর সাথে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের একাধিক বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।  

এছাড়াও অর্থমন্ত্রী কানাডার সহকারী উপমন্ত্রী ডোনাল্ড ববিয়াশের নেতৃত্বাধীন কানাডীয় প্রতিনিধিদলের সাথে বৈঠক করবেন এবং জেবিআইসি এর সিনিয়র ম্যানেজিং ডিরেক্টর নোবুমিস্তু হায়াইহীর সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে।  

তিনি এখানে ১২তম দক্ষিণ এশিয়া এসোসিয়েশন ফর রিজিওনাল কোঅপারেশন (সার্ক) ফাইন্যান্স মন্ত্রিসভাও যোগ দেবেন।

১৯৬৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এডিবিতে বাংলাদেশ ১৯৭৩ সালে যোগ দেয় এবং সংস্থার প্রথম সদস্য দেশ হিসেবে ১৯৮২ সালে এখানে মাঠপর্যায়ে কার্যালয় স্থাপন করা হয়।

ব্যাংকটি এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের জন্য দুই হাজার কোটি মার্কিন ডলারের অধিক ঋণ, অনুদান ও কারিগরি সহায়তা অনুমোদন দিয়েছে। আর অ-সার্বভৌম ঋণ, ইকুইটি বিনিয়োগ এবং জামানত হিসেবে মোট অনুমোদন করেছে ৯৮ কোটি ৫২ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলার।

সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের বিভিন্ন দেশের অর্থমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর, বেসরকারি খাতের প্রতিনিধি, উন্নয়ন সহযোগী, শিক্ষাবিদ, সুশীল সমাজের সদস্য, গণমাধ্যম ও তরুণ নেতারা।

এশিয়া, উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপ থেকে প্রায় ৪ হাজারের অধিক অংশগ্রহণকারী সম্মেলনে যোগ দেন বলে এডিবির এক কর্মকর্তা বুধবার ইউএনবিকে জানিয়েছেন।

এই বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করায় এডিবি প্রেসিডেন্ট তাকেহিকো নাকাও ফিলিপাইন সরকার এবং অর্থমন্ত্রী ও পরিচালনা পর্ষদের সভাপতির প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

গত বছর ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলন হয় জাপানের ইয়োকোহামায়। এবার ১৬তম বারের মতো ম্যানিলায় সম্মেলন হচ্ছে। এখানে সর্বশেষ ২০১২ সালের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উন্নয়নে প্রভাব ফেলা বৈশ্বিক ও আঞ্চলিক বিষয়গুলো নিয়ে সম্মেলনে আলোচনা করা হবে। সেই সাথে ২০৩০ সালের মধ্যে এ অঞ্চলকে সমৃদ্ধ, অন্তর্ভুক্তিমূলক, স্থিতিশীল এবং টেকসই হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে এডিবি ও তার উন্নয়ন সহযোগীরা কীভাবে এক সাথে কাজ করতে পারে তার অনুসন্ধান চালানো হবে।

সম্মেলনে মূল বার্ষিক সভার পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। যার মধ্যে থাকছে- নারীদের উদ্যোগ ও অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে লিঙ্গ বৈষম্য, এশিয়ার বিপুল অবকাঠামো চাহিদা পূরণে বেসরকারি খাতের ক্রমবর্ধমান ভূমিকা, আর্থিক ব্যবস্থায় নতুন প্রযুক্তি, জলবায়ু পরিবর্তন এবং দুর্যোগে কমিউনিটিভিত্তিক সমাধানে বিনিয়োগ, এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রবৃদ্ধির উন্নয়ন।

এডিবির দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা হিসেবে সর্বশেষ গৃহীত কৌশল ২০৩০র খসড়াটি এবছর চূড়ান্ত করার লক্ষ্যে পরিচালনা পর্ষদের সভায় আলোচনা হবে।