Pran All Time

ব্যাংকের অর্থ লুটকারীদের শাস্তি চেয়েছে এফবিসিসিআই

UNB NEWS

শনিবার ০৯ জুন, ২০১৮ ০৯:৫৬:৫৬ পিএম

ব্যাংকের অর্থ লুটকারীদের শাস্তি চেয়েছে এফবিসিসিআই

ঢাকা, ০৯ জুন (ইউএনবি)- দেশের ব্যাংকগুলো থেকে যারা অর্থ লুটপাট ও আত্মসাৎ করেছেন তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়েছে বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশন (এফবিসিসিআই)।

শনিবার এফবিসিসিআই কার্যালয়ে আয়োজিত বাজেট পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান সংস্থার সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

তিনি বলেন, ব্যাংক থেকে অর্থ ডাকাতির সাথে জড়িত কাউকে বাঁচাতে এফবিসিসিআইয়ের কেউ কোনো তদবির করবে না।

মহিউদ্দিন জানান, যারা বেসিক ব্যাংক ও ফারমার্স ব্যাংক জালিয়াতিতে জড়িত ছিলেন তাদের বিচার হচ্ছে। তবে তিনি নির্দিষ্ট কোনো ব্যক্তির নাম উল্লেখ করেননি।

দেশের ব্যবসায়ীদের সর্বোচ্চ সংগঠনের সভাপতি বলেন, এটা ভালো লক্ষণ যে এমনকি সাবেক সংসদ সদস্য ও মন্ত্রীদেরও তাদের পূর্বের অপরাধের জন্য বিচার করা হচ্ছে। ‘আমরা চাই না জনগণের জমানো অর্থ কারো দ্বারা ব্যাংকিং ব্যবস্থা থেকে ডাকাতি হয়ে যাক।’

এফবিসিসিআই সভাপতি পোশাক শিল্পে করপোরেট কর কমানো এবং রপ্তানিতে ০.৭ শতাংশ উৎসে কর বহাল রাখার আহ্বান জানান।

ব্যক্তি পর্যায়ে করমুক্ত আয়ের সীমা ৩ লাখ টাকায় উন্নীত করারও দাবি জানান মহিউদ্দিন।

তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেট বিনিয়োগবান্ধব, তবে ব্যবস্থাপনাগত দুর্বলতার কারণে তা ঝামেলাহীনভাবে বাস্তবায়ন করা যাবে না।

তিনি অন্যান্য খাতেও সমানভাবে করপোরেট কর কমাতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার অভাব থাকলে সরকারকে এই বাজেট বাস্তবায়নে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে।

তিনি বলেন, ব্যবসায়ীরা এমন কোনো রাজনৈতিক পরিবেশ দেখতে চায় না যা ব্যবসার ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।

মহিউদ্দিন সরকারকে সময় মতো প্রকল্প বাস্তবায়নের পরামর্শ দেন। কারণ, প্রকল্প বাস্তবায়নে দেরি হওয়ার কারণে অতিরিক্ত খরচ বেড়ে যায়।

তিনি ব্যাংক ঋণে সুদের হার এক অংকে রাখার পদক্ষেপ নেয়ার এবং আরো দেশি-বিদেশি সরাসরি বিনিয়োগ আকর্ষণে বিনিয়োগবান্ধব ব্যবসার পরিবেশ সৃষ্টির দাবি জানান।

এছাড়া, এফবিসিসিআই সভাপতি নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ ও যতো দ্রুত সম্ভব অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলো উন্নয়নের দাবি জানান।

তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটটি বাস্তবায়ন করা হলে ব্যবসা করার খরচ কমে আসবে।