‘গর্ভধারণ ও সন্তান জন্মদান একটি জটিল প্রক্রিয়া। একজন মা ঝুঁকিপূর্ণ এ জটিল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে  নবজাতকের মুখ দেখে তৃপ্তির হাসি হাসেন। কিন্তু অনেক গর্ভধারিণীর মুখে এই হাসি ফুটে ওঠে না। এর অন্যতম কারণ ফিস্টুলাজনিত গর্ভকালীন সমস্যা।’

">
Pran All Time

কক্সবাজারে প্রসবজনিত ফিস্টুলা বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন

UNB NEWS

শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০৭:৩২:৪৯ পিএম

কক্সবাজারে প্রসবজনিত ফিস্টুলা বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন

কক্সবাজার, ১০ ফেব্রুয়ারি (ইউএনবি)- ‘গর্ভধারণ ও সন্তান জন্মদান একটি জটিল প্রক্রিয়া। একজন মা ঝুঁকিপূর্ণ এ জটিল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে  নবজাতকের মুখ দেখে তৃপ্তির হাসি হাসেন। কিন্তু অনেক গর্ভধারিণীর মুখে এই হাসি ফুটে ওঠে না। এর অন্যতম কারণ ফিস্টুলাজনিত গর্ভকালীন সমস্যা।’

‘ফিস্টুলা এখনো বাংলাদেশে একটি উল্লেখযোগ্য নারী স্বাস্থ্য সমস্যা। এই রোগে আক্রান্ত নারীরা পারিবারিকভাবেও অবহেলার শিকার হন।’

শনিবার পর্যটন শহর কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত ২য় আন্তর্জাতিক হোপ মাতৃত্বকালীন স্বাস্থ্য অ্যান্ড ফিস্টুলা সম্মেলনে এসব কথা বলেন বক্তারা।

কক্সবাজার সাগরপাড়ের একটি বিলাসবহুল হোটেলের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত ফিস্টুলা সম্মেলন ২০১৮ এর মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন নিউইয়র্ক থেকে আসা ফিস্টুলা কেয়ার প্লাস ও এনজেন্ডারহেলথ-এর গ্লোবাল প্রজেক্ট ম্যানেজার বেথেনি কোল।

তিনি তার মূল প্রবন্ধে বাংলাদেশের সব নারীর জন্য নিরাপদ সার্জারি সেবার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে মাতৃমৃত্যুর হার এখনো অনেক বেশি। দেশে প্রতি লাখ জীবিত সন্তান জন্মদানে জীবন দিতে হয় ১৯৬ জন মাকে। এভাবে প্রতি বছর পাঁচ হাজারের বেশি মা মারা যায় দেশে। এছাড়া আরো অনেক মা প্রসবজনিত জটিলতার সম্মুখীন হচ্ছেন। ফিস্টুলা রোগে আক্রান্ত নারীদের জীবন হয়ে ওঠে দুর্বিষহ।

তিনি জানান, এদেশের মায়েদের গর্ভধারণ ও প্রসব অভিজ্ঞতা আরো নিরাপদ করার লক্ষ্যে একটি ব্যতিক্রমী কর্মসূচি সূচনা করেছে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা এনজেন্ডারহেলথ-এর ফিস্টুলা কেয়ার প্লাস প্রকল্প। ইউএসএআইডি-এর অর্থায়নে বাস্তবায়িত এই প্রকল্প দেশের ফিস্টুলা প্রতিরোধ, চিকিৎসা ও পুনর্বাসনে ২০০৫ সাল থেকে কাজ করে যাচ্ছে।

বেথেনি কোল আশা করেন এই সম্মেলনের মাধ্যমে নিরাপদ সার্জারি সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। একই সাথে বাংলাদেশের সকল নারীর কল্যাণে সর্বত্র নিরাপদ সার্জারি নিশ্চিত করার জন্য সরকারি ও বেসরকারি সংস্থাসমূহ একযোগে কর্মসূচি বাস্তবায়িত করবে।  

ইউএনএফপির ডা. সাথিয়ার ডোরাইস্বামীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজারের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল।

ফিস্টুলা নিয়ে বিশেষ আলোচনা করেন এনজেন্ডারহেলথ বাংলাদেশ ও ফিস্টুলা কেয়ার প্লাস প্রকল্পের দেশীয় প্রকল্প ব্যবস্থাপক ডা. শেখ নাজমুল হুদা।

হোপ ফাউন্ডডেশনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন বিখ্যাত ফিস্টুলা সার্জন ডা. স্টিভ এরোস্মিথসহ অনেকে।

সম্মেলনে দেশ বিদেশের দুইশ পেশাজীবী ডাক্তার, নার্স, বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠনের প্রতিনিধি ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।